শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০৫:৫৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
পদ্মা নদীতে পাওয়া লাশ যশোর সদরের মোঃ মিনারুলের ইসলামপুরে মাদকের অভিযানে ৩শ লিটার মদসহ নারী আটক – আগামী নির্বাচনের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাজপথ দখলে থাকবে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী নওগাঁর মাদক সেবির ৬ মাসের সাজা জামালপুরে ভাড়াটিয়া গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে বাড়ির মালিক উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা গ্রেপ্তার- খুলনায় “বাংলাদেশ প্রেসক্লাব” রুপসা উপজেলা শাখা আহ্বায়ক কমিটির পক্ষ থেকে জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ। গোবিন্দগঞ্জে নিখোঁজের দুইদিন পর যুবকের লাশ উদ্ধার ১০ মামলার আসামী গ্রেফতার মহেশখালীতে কিশোরীকে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেপ্তার ১ একাকীত্বের অবসান ঘটালেন সাংবাদিক তানভীর ইরাক রাজশাহীর দুর্গাপুর নান্দিগ্রাম ডি.এস আলিম মাদ্রাসা যেন ভূতের বাড়ি জ্বালানী তেলের অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধি দেশকে সঙ্কট ও বিপর্যয়ের মুখে ফেলে দিয়েছে – অধ্যক্ষ শেখ ফজলে বারী মাসউদ ভৈরবে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক দখলীকৃত ফুটপাত উচ্ছেদ অভিযান বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী অন্তঃসত্বা সুন্দরগঞ্জে প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ মামলায় উপ-সচিবের রিমান্ড সুন্দরগঞ্জে ছাত্রলীগ/যুবলীগের বাঁধারমুখে জাতীয় পার্টির বিক্ষোভ সমাবেশ পন্ড অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ সুন্দরগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে নেত্রকোণায় জেলা সামাজিক সম্প্রীতি কমিটির সভা অনুষ্ঠিত ঘরের আশায় দ্বারে দ্বারে ঘুরেও ঘর পায়নি প্রতিবন্ধী মোকছেদুল গাজীপুর জেলার সামাজিক-সম্প্রীতি কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত

ইসির ডোপ টেস্টের নির্বাচন, না হলে প্রহসন, বাবুল-তারেকেই সমীকরণ!

Agrajatra24.com
  • সংবাদটি লিখা হয়েছে : মঙ্গলবার, ১৪ জুন, ২০২২
  • ১২ জন পড়েছে

সাইফুল আফ্রিদি (মহেশখালী)

*বড় মহেশখালীতে আওয়ামীলীগের মেরুকরণে বাবুলেই সমীকরণ! কালারমারছড়াতে তারেক।
*প্রশাসনের কড়া হুঁশিয়ারী।
*প্রচারণার শেষ মুহুর্ত পর্যন্ত ঘটেনি কোন অপ্রীতিকর ঘটনা

স্থানীয় সরকারের শেষ ধাপের ইউপি নির্বাচন। নতুন ইসির চ্যালেঞ্জিং নির্বাচনও এটি। ইসির পক্ষ থেকে বারবার বলা হচ্ছে সুষ্ঠু,অবাধ নির্বাচন হবে। তবে নুরুল হুদার চেয়ে হাবিবুলে কতটা বিশ্বাস রাখতে পারবে জনগণ সেটিরও একটা ডোপ টেস্ট হতে যাচ্ছে এই নির্বাচন। সারাদেশে ১৩৫টি ইউনিয়নের ইউপি নির্বাচনে মহেশখালীতেও প্রচার প্রচারণায় দৌড়ঝাঁপ প্রার্থীদের। পোস্টার,ব্যানারে ছেয়ে গেছে বাজার, পোস্টারের সামিয়ানায় ঢেকে গেছে রাস্তার মোড়, পাড়ার অলিগলি। সমর্থকদের লাগামহীন উপভোগ্য ভোট উৎসব। রাস্তার মোড়ে,গোলচক্করে, চায়ের দোকানে চলছে ছুলছেড়া বিশ্লেষণ। কে হবে চেয়ারম্যান! এবারের ইউপি নির্বাচনে মহেশখালীর কালারমারছড়া ও বড় মহেশখালী ইউনিয়নে বর্তমান দুই চেয়ারম্যানকেই এগিয়ে রাখতে চায়ছেন চায়ের দোকানের বিশ্লেষকরা। বড় মহেশখালী ও কালারমারছড়া ইউনিয়নে বাবুল, তারেকই ফেবারিট বলে ধরে নিচ্ছেন ভোটারগণ। তবে হ্যাভিওয়েট প্রার্থীদের আলাদা আলাদা ভোট ব্যাংক পাল্টে দিতে পারে বিজয়ের হিসাব নিকাশ।

বড় মহেশখালীতে ৩২,৬৭০ ভোটার ও কালারমারছড়ায় ৩৬,২৯৫ ভোটার রয়েছেন। দুই ইউনিয়নে মোট ৩২ টি ভোট কেন্দ্র রয়েছে। বড় মহেশখালীতে নৌকার মাঝি মোস্তফা আনোয়ার দলীয় সমর্থন ও সমর্থকদের নিয়ে আশাবাদী। আওয়ামী লীগের একক মনোনীত প্রার্থী হওয়ায় তার জিতে আসার প্রবল আত্নবিশ্বাস। তবে মাছের কাটা হয়ে গলায় বিঁধল বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুল্লাহ আল নিশান। একই দলের দুইজন হওয়ায় সমর্থকদের ভোট ভাগ হয়ে গিয়ে বিজয়ের মালা বাবুল পরতে পারে বলে শোরগোল উঠেছে। তাছাড়া বর্তমান সফল চেয়ারম্যান বাবুল ধরে রেখেছেন ভোটারদের আস্থা। নাগরিক সেবার দিক দিয়ে অন্যান্য ইউনিয়নের চেয়ে তড়িৎ সেবা মিলেছে বড় মহেশখালী ইউনিয়নের নাগরিকদের। এদিকে ভোটের আমেজের বদহজমে সমর্থকদের বেপরোয়া প্রচার প্রচারণায় আচরণবিধি লঙ্গনের জন্য শোকজ হয়েছে মোস্তফা আনোয়ার ও নিশান। বিদ্রোহী প্রার্থী হিশেবে দল থেকে বহিষ্কার হয়েছেন নিশান ও তার বাবা উপজেলা চেয়ারম্যান শরীফ বাদশা। বহিষ্কার,তিরস্কারে পরিষ্কার হচ্ছে দিনকে দিন নিশানের জনপ্রিয়তাও। সাধারণ ভোটারদের ধারণা বাবুল, নিশানেই মহরথ হতে পারে বড় মহেশখালীতে। এবারে অন্যান্য নির্বাচনের তুলনায় ইউপি সদস্য পদেও গোষ্ঠীগত হ্যাভিওয়েট প্রার্থীর অংশগ্রহণ বেশি। আচরণবিধির তোয়াক্কা না করাতে জরিমানাও গুণতে হয়েছে বড় মহেশখালীর কয়েকজন ইউপি মেম্বার পদপ্রার্থীদের।

আমেজের শেষ নেই কালারমারছড়া ইউপি নির্বাচনেও। দুর্যোগ সহনশীল মডেল ইউনিয়ন ঘোষণা হওয়ায় এবারের বাজেটে আমূল-পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে এই ইউনিয়নে। তাই প্রার্থীদেরও চেষ্টার অন্ত নেই। সন্তর্পণে কাজ চালাচ্ছে মাঠে ময়দানে। এরই মধ্যে ঘোড়া মার্কার বিচরণ পাড়ার অলিগলিতে। দাপিয়ে দাপিয়ে লাফিয়ে লাফিয়ে যাচ্ছে সাংবাদিক হোবাইব সজীবের ঘোড়া। পরিবারের ঐতিহ্য ধরে রাখতে নির্বাচনে নেমেছেন বলে প্রচারণা চালাচ্ছেন তোড়জোড়ে। করজোড়ে ঘোড়া মার্কা প্রতীকে ভোট চাচ্ছেন ভোটারদের কাছে। দীর্ঘদিন পিতৃভূমিতে থাকতে না পারায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে বিভাজনের রাজনীতি ছেড়ে দুই গ্রুপকেই সহাবস্থান করাবেন বলে কথা দিচ্ছেন ভোটারদের।সম্প্রীতির কালারমারছড়া উপহার দিবেন বলেও জানাচ্ছেন। মাঠ চষছেন টেলিফোন মার্কার আক্তারুজ্জামান বাবু। চ্যালেঞ্জিং নির্বাচন তার। নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থী হিশেবে ইউনিয়ন যুবলীগ থেকে বহিষ্কার হয়েছেন। গতবারের এই ইউপি সদস্য এবারের চেয়ারম্যান প্রার্থী মাঠ ছেড়ে দিয়ে কাউকে খালি পোস্টে গোল দিতে দিবেনা বলে প্রচারণায় রয়েছে সরগরম। আধিপত্যের রাজনীতির শিকল ভাঙ্গার দৃঢ প্রত্যয় নিয়ে জোট বেঁধেছে বিএনপি জামায়াত নিয়ে। হালের জনপ্রিয় চেয়ারম্যান তারেকের সাথে তীব্রতর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করার ঘোষণা দিচ্ছেন পথ সভা,উঠান বৈঠকে। ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যানগণ তার জন্য কাজ করছে বলেও বিভিন্ন পথসভায় ভোটারদের আকর্ষণ করছেন। এই তিনের সমীকরণে কে নিতে পারে সিংহাসন প্রশ্ন জনমনে। তবে যার যার সমর্থকেরা তাকেই এগিয়ে রাখছে। এদিকে প্রবল আত্নবিশ্বাসী বর্তমান চেয়ারম্যান তারেক। অন্যান্যবারের তুলনায় ইউনিয়নের রাস্তাঘাটে ব্যাপক উন্নয়ন করায় ভোটারদের কাছে তুলে ধরে আরো উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। দিচ্ছেন অসমাপ্ত কাজ সমাপ্তের অঙ্গীকার। ভোটের উৎসবে বেপরোয়া সমর্থকদের উল্লাস,প্রচার,প্রচারণা,গান বাজনা লঙ্ঘন করছে নির্বাচনী আচরণবিধি। এখানেও শোকজ হলেন তিন চেয়ারম্যান ও চারজন ইউপি সদস্য প্রার্থী। তবে এবারের ইউপি সদস্যদের মাঝে গোষ্ঠীগত রাজনীতি পরিলক্ষিত হচ্ছে। এমনকি এক ওয়ার্ডে ৬-৭ হাজার ভোটের বিপরীতে লড়ছেন ১০/১২ জন প্রার্থী। দুই ইউনিয়নে ১৯৩ জন প্রার্থীর প্রতিদ্বন্দ্বিতা এইবারের মতো রেকর্ড করেছে মহেশখালীতে। তবে এবারে প্রত্যেক ওয়ার্ডে কিছু তরুণ প্রার্থীর অংশগ্রহণ দেখা যাচ্ছে। তরুণদের রাজনীতিতে আসা একটি ইতিবাচক দিক। তাই এবারে ইউপি নির্বাচনী মাঠ থাকছে প্রাণচাঞ্চল্যতা,উপভোগ্যতা ও উচ্ছাসে ভরপুর। প্রচার প্রচারণার শেষ মুহুর্ত পর্যন্ত কোন ধরনের সহিংসতা বা অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে নি। বিশাল বিশাল পথসভা শো ডাউনের মধ্যে দিয়ে শেষ হলো নির্বাচনী প্রচারণা। তবে বড় মহেশখালীতে শেষ দিনে জনসভার অনুমোদন পায়নি চশমা মার্কা প্রতীকের বাবুল। এ নিয়ে তিনি সংবাদ সম্মেলনও করেন।

নতুন ইসির প্রথম এই নির্বাচনে প্রশাসনও রয়েছে হার্ডলাইনে। আচরণবিধি লঙ্গনের শোকজের পাশাপাশি জরিমানাও গুণতে হচ্ছে অনেক ইউপি প্রার্থীদের। বড় মহেশখালীতে ছয়জন ইউপিকে ১০ হাজার করে জরিমানা করেছেন উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম। দিয়েছেন সকল রঙিন পোস্টার,তোরণ ও দেয়ালে লাগানো পোস্টার সরানোর ২৪ ঘন্টার আলটিমেটাম। প্রতিটি আইন শৃঙ্খলা কমিটির মিটিংয়ে কঠোর হুশিয়ারী বার্তাও দিচ্ছেন উপজেলা প্রশাসন।

অবাধ,সুষ্ঠু, সুন্দর ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন উপজেলা আইন শৃঙ্খলা মিটিংয়ে উপজেলা নির্বা

+ posts

ফেসবুকে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ধরনের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Agrajatra 24
Design & Develop BY Coder Boss
themesba-lates1749691102