বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৭:৪৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কুমিল্লায় মাদক কারবারিদের আতংকের আরেক নাম ডিএনসি ও টাস্কফোর্স! চুনারুঘাটে জমিতে মাটি কাটায় বাধা দেওয়ায় প্রতিপক্ষের হামলা। ৩ মহিলা আহত বাগমারায় যুবদলের ফরম বিতরণ অনুষ্ঠিত বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে তরুণীর অনশন রাজশাহী বাগমারা থানা পুলিশে’র পৃথক অভিযানে গ্রেপ্তার ৪ নওগাঁয় দুই দিনব্যাপী শিশু মেলার উদ্বোধন সময়ের বিবর্তনে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব আমাদের দূয়ারে, এর সঠিক ব্যবহার জরুরী গলাচিপায় মৎস্য জীবী লীগের সাংগঠনিক সভায় কমিটির রদবদল কান উৎসবে বঙ্গবন্ধু বায়োপিকের ট্রেইলার উদ্বোধনে ফ্রান্সের পথে তথ্যমন্ত্রী গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার কমিটির সভা

চিকিৎসার কারণে মাদক ছেড়েছেন সেই ব্যক্তিদের নিয়ে বিভাগীয় রিকভারী সন্মেলন

শিবলী সরকার, রাজশাহী ব্যুরোঃ
  • সংবাদটি লিখা হয়েছে : রবিবার, ২১ মার্চ, ২০২১
  • ৯৪ জন পড়েছে

চিকিৎসার মাধ্যমে মাদক ছেড়েছেন এমন ব্যক্তিদের নিয়ে রাজশাহীতে ‘বিভাগীয় রিকভারী সম্মেলন’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার(২০ মার্চ) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের বিভাগীয় কার্যালয়ের কক্ষে এ আয়োজনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অন্যতম নেতা শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান, জেলা পরিষদ মিলনায়তনে সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়। এ সম্মেলনে রাজশাহী বিভাগের আট জেলার ৪৭টি মাদক নিরাময় কেন্দ্রে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হওয়া ৫৬৪ জন ব্যক্তিগণ যোগ দেন। আয়োজিত অনুষ্ঠানে উনারা এ কথা বলেন, আর কেউ যেন মাদক গ্রহণ না করেন। দেশে যেন মাদকের উৎপাদন না হয়। সীমান্ত পেরিয়ে যেন কোন মাদক আসতে না পারে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রশাসনের কর্মকর্তারা নিজ নিজ স্থান থেকে মাদক নির্মুলের প্রচেষ্টার কথাও তুলে ধরেন।

উক্ত সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিভাগীয় কমিশনার ড. হুমায়ুন কবীর মাদক ছেড়ে আসা ব্যক্তিদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আপনারও দেশের সম্পদ। নিজেকে কখনও ছোট মনে করবেন না। যে যা কাজ পান তাতেই লেগে পড়েন। কাজে ব্যস্ত থাকলে কখনও মাদকের কথা মনে পড়বে না। সবাই ভাল থাকবেন।’এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশের রাজশাহী রেঞ্জের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) আবদুল বাতেন। তিনি বলেন, ‘মাদক নিয়ন্ত্রণের জন্য প্রতিটি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সাধ্যমত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে অভিভাবকদেরও দায়িত্বশীল ভূমিকা প্রয়োজন। সন্তান কোথায় যাচ্ছে, কার সাথে মিশছে- এসব দেখে রাখলে তাকে মাদক থেকে দূরে রাখা সম্ভব।’

রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক ও রাজশাহীর পুলিশ সুপার (এসপি) এবিএম মাসুদ হোসেনও অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন। স্বাগত বক্তব্য দেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের বিভাগীয় কার্যালয়ের অতিরিক্ত পরিচালক জাফরুল্ল্যাহ কাজল।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আবু আসলাম।

ফেসবুকে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ধরনের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Agrajatra 24
Design & Develop BY Coder Boss
themesba-lates1749691102