মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০১:৪১ পূর্বাহ্ন

চুয়াডাঙ্গায় গ্রেফতারকৃত আসামির স্বীকারোক্তিতে সচল আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার

সাজিদ হাসান সোহাগ-
  • সংবাদটি লিখা হয়েছে : বৃহস্পতিবার, ৪ মার্চ, ২০২১
  • ৮৬ জন পড়েছে

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধিঃ চুয়াডাঙ্গায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সাচ্চু শেখ (৪৫) নামের এক ব্যক্তির উপর গুলিবর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতারকৃত আসামি বাকের আলীকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের পর তার দেওয়া তথ্যমতে একটি সচল আগ্নেয়াস্ত্র ওয়ান শুটারগান উদ্ধার করেছে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার পুলিশ। উদ্ধারকৃত ওয়ান শুটারগানটির সচল ফায়ার পিন ও ট্রিগার রয়েছে এবং আগ্নেয়াস্ত্রটি ১০ ইঞ্চি লম্বা। বৃহস্পতিবার (৪ঠা মার্চ) রাত ১টার দিকে আগ্নেয়াস্ত্রটি উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত ২৭ ফেব্রুয়ারি বেলা ৩টা ২০ মিনিটের সময় চুয়াডাঙ্গা পৌরশহরের নূরনগর কলোনীপাড়ার সু-সাহেবের ছেলে সাকের আলী (৩০) ও বাকের আলী (২৮) চুয়াডাঙ্গা বাসটার্মিনাল এলাকার ঝিনাইদহ বাসস্ট্যাণ্ডে উপস্থিত হয়। টাকা পয়সা লেনদেন সংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতার জেরে এ সময় সাকের আলী তার নিকট থাকা আগ্নেয়াস্ত্র বের করে পৌরশহরের জোয়ার্দ্দার পাড়ার মৃত আরেফিন শেখের ছেলে সাচ্চু শেখকে লক্ষ্য গুলিবর্ষণ করে। গুলিটি সাচ্চুর তলপেটের নিচের দিকে লাগলে সে রক্তাক্ত জখম হয়। গুলিবর্ষণের পর আসামিরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম ও সদর থানার ওসি আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান। তড়িৎ পদক্ষেপ নিয়ে বেলা সাড়ে ৪টার সময় বাসটার্মিনালের পার্শ্ববর্তী ভূট্টাক্ষেত হতে আসামি বাকের আলীকে গ্রেফতার করতে সমর্থ হয় সদর থানার পুলিশ। গ্রেফতারকৃত আসামির স্বীকারোক্তিতে ৬ রাউণ্ড গুলি এবং একটি ম্যাগাজিন উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় সদর থানায় মামলা দায়েরপূর্বক গ্রেফতারকৃত আসামিকে বিজ্ঞ আদালতে সোপার্দ করে রিমাণ্ড আবেদন করে পুলিশ। বিজ্ঞ আদালত আসামি বাকের আলীর ১ দিনের রিমাণ্ড মঞ্জুর করলে গতকাল বুধবার আদালতের নির্দেশনা মোতাবেক আসামিকে হেফাজতে এনে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের পর আসামি বাকের আলীর স্বীকারোক্তি ও দেখানো মতে বৃহস্পতিবার (৪ঠা মার্চ) রাত ১টার সময় পৌরশহরের নূরনগর কলোনীপাড়াস্থ আসামির শয়নক্ষ হতে ১টি ওয়ান শুটারগান উদ্ধার করে সদর থানার এসআই আশিকুর রহমান এবং এএসআই আশরাফুজ্জামানের নেতৃত্বে থাকা সঙ্গীয় অফিসার ফোর্স।

উপরিউক্ত বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়ছে। শহরে পুলিশি টহল জোরদার এবং সাদা পোশাকে পুলিশের নজরদারি বৃদ্ধি করা হয়েছে। বর্তমানে শহরের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ। এদিকে আসামিকে গ্রেফতারের পর অত্যন্ত বিচক্ষণতার সাথে আসামির নিকট থেকে স্বীকারোক্তি আদায়পূর্বক আগ্নেয়াস্ত্রটি উদ্ধার করতে সমর্থ হওয়ায় এসআই আশিকুর রহমান এবং এএসআই আশরাফুজ্জামানকে সাধুবাদ জানিয়েছে ভুক্তভোগী পরিবারের লোকজন এলাকাবাসী।

ফেসবুকে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ধরনের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Agrajatra 24
Design & Develop BY Coder Boss
themesba-lates1749691102