Agrajatra24.com
Agrajatra 24
UX/UI Designer at - Adobe

অনুসন্ধান মূলক জাতীয় সাপ্তাহিক পত্রিকা অগ্রযাত্রা

ঝালকাঠিতে নেছারাবাদ দরবার শরীফের দুই দিনব্যাপী বার্ষিক ঈছালে ছওয়াব ও ওয়াজ-মাহফিল শুরু

লেখক:
প্রকাশ: ১ বছর আগে

Agrajatra24.com
Agrajatra 24
UX/UI Designer at - Adobe

অনুসন্ধান মূলক জাতীয় সাপ্তাহিক পত্রিকা অগ্রযাত্রা

স্টাফ রিপোর্টারঃ নবীন মাহমুদ

ঝালকাঠিতে আজ সোমবার আছরের নামাজরে পর থেকে শুরু হয়েছে নেছারাবাদ দরবার শরীফের দুই দিনব্যাপী বার্ষিক ঈছালে ছওয়াব ও ওয়াজ-মাহফিল। বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ হযরত মাওলানা আযীযুর রহমান কায়েদ সাহেব হুজুরের প্রতিষ্ঠিত এনএস কামিল মাদ্রাসা ময়দানে এ মাহফিলে লাখ মানুষের জমায়েত হয়েছে।
আগামী বুধবার ফজরের নামাজের পরে আখেরি মোনাজাতের পরে মাহাফিল শেষ হবে। প্রথম দিনে উদ্বোধনী বয়ান করেন মাহফিলের সভাপতি কায়েদ সাহেব হুজুরের একমাত্র সাহেবজাদা আমীরুল মুছলিহীন হযরত মাওলানা মুহম্মদ খলীলুর রহমান নেছারাবাদী। দুই দিনব্যাপী মাহফিলে তিনি গুরুত্বপূর্ণ বয়ান করবেন।
এছাড়াও তিনি সমাপনী বয়ান শেষে আখেরী মোনাজাত পরিচালনা করবেন। মাহফিলে দেশ-বিদেশ থেকে কায়েদ ভক্ত আশেকানসহ লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসলমান অংশ নিবেন। মাহফিলকে কেন্দ্র করে ইতোমধ্যে ৬৪ জেলার ভক্ত আশেকান মেহমানদের থাকা ও খাওয়ার ব্যবস্থা নিশ্চিত করেছে মাহফিল পরিচালনা কমিটি। ইতোমধ্যেই মাহফিলে ভক্ত আশেকান ও মেহমানদের আগমন শুরু হয়েছে।
এনএস কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মো. গাজী শহিদুল ইসলাম জানান , ইতোমধ্যে মাহফিলের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। নির্মাণ করা হয়েছে ৫টি প্যান্ডেল। আগত মেহমানদের সেবায় ৫ হাজার স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত রাখা হয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকেও ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়াও বিশুদ্ধ পানি ও প্রয়োজনীয় শৌচাগারের ব্যবস্থা করা হয়েছে।
নেছারাবাদে প্রবেশের সড়কটি মাহফিল চলাকালে যানবাহনমুক্ত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
অতিথিদের মেহমানদারীর দায়িত্বে থাকা নেছারাবাদ জিনাতুন্নেছা ফাজিল মহিলা মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা ইছহাক আমীন বলেন , দূর-দূরান্ত থেকে আগত মেহমানদের গাড়িবহর পার্কিংয়ের জন্য ব্যবস্থা নিয়েছেন কর্তৃপক্ষ। মাহফিলকে ঘিরে জেলা জুড়ে সাজসাজ রব বিরাজ করছে। মাহফিলে উপমহাদেশের বুযুর্গ-ওলী, দার্শনিক ও মুজাদ্দেদ হযরত কায়েদ সাহেব হুজুরের প্রতিষ্ঠিত দরবার শরীফে দেশবরেণ্য শিক্ষাবিদ-মুহাক্কেক ওলামায়ে কেরামগণ বয়ান করবেন।