শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৭:৩৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শেখ হাসিনার হাতেই বাংলাদেশ নিরাপদ…..নওগাঁয় খাদ্যমন্ত্রী রাজশাহীর হলিদাগাছিতে ৩ ফসলি জমিতে চলছে পুকুর খনন যশোরে পুরুষ সেজে মধুর প্রেমের সম্পর্কের ফাঁদে ফেলে সর্বস্ব লুটে নিতো তরুণী। যশোরের চৌগাছা সীমান্ত থেকে ১৪ কেজি ৪৫০ গ্রামের ১শ’ ২৪ টি স্বর্ণের বার সহ ১জন আটক। “গ্লোবাল ক্রাইসিস রেসপন্স গ্রুপ” বিশ্ব নেতৃবৃন্দের ছয় সদস্যের একজন শেখ হাসিনা। শার্শা সীমান্তের ইছামতি নদী থেকে অজ্ঞাত এক যুবকের লাশ উদ্ধার যশোরে চোরাই মোবাইলসহ গ্রেফতার ২ লক্ষীপুর মাতৃমঙ্গল হতে বের হয়ে রাস্তায় স্বাভাবিক প্রসবে সন্তান জন্ম “বিট পুলিশিং বাড়ি বাড়ি, নিরাপদ সমাজ গড়ি” সোমবার দেশে আসছে বিশিষ্ট সাংবাদিক আবদুল গাফফার চৌধুরীর মরদেহ।

ঢাকা আরিচা মহাসড়ক যেন মরণফাঁদ ও সেলফি পরিবহন যেন এক আতঙ্কের নাম

Coder Boss
  • সংবাদটি লিখা হয়েছে : বুধবার, ১১ মে, ২০২২
  • ২১১ জন পড়েছে

রিপোর্ট : মোহাম্মদ মুহাজির রহমান মিঠু

মানিকগঞ্জ জেলার পাটুরিয়া ঘাট থেকে গাবতলী পর্যন্ত রোডে সেলফি পরিবহন একটি আতঙ্কের নাম।
প্রায় প্রতিদিন এই রোডে কোথাও না কোথাও এই পরিবহনটি ধারাবাহিক ভাবে এক্সিডেন্ট করছেই , প্রত্যেকদিন নিহত আহত হচ্ছেই কিন্তু কতৃপক্ষ কোনো ব্যাবস্থা নিচ্ছে না। ঢাকা আরিচা মহাসড়ক যেন একটা মৃত্যু কূপে পরিনত হচ্ছে দিনকে দিন এই পরিবহনের জন্য। দেখা যায় অনেক গাড়ির রোড পারমিট না থাকা সত্যেও এই সেলফি পরিবহনটি হেমায়েতপুর, সিংগাইর, মানিকগঞ্জ রোডে নিয়মিত বেপরোয়া ভাবে গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছে এই পরিবহন । কিন্তু সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের কোনো নজর নেই এই দিকে, সামাজিক মাধ্যমে প্রচুর ভাইরাল এই পরিবহনের দুর্ঘটনা নিয়ে। এই পরিবহনের উপর মানুষের রাগ ক্ষোভের যেন শেষ নেই, পরিবহনটি ভাড়াও বেশি রাখা হয়। ঈদের সময় ভাড়াও ৩গুন বেড়ে যায় , ছাত্রদের কাছ থেকে হাফ ভাড়া রাখা হয়না তারপর পরিবহনটির চালক তীব্র প্রতিযোগিতা করে গাড়ি চালায় সবসময়, জানা যায় অনেক চালক নেশার সাথে জড়িয়ে আছে।
শুধু সেলফি পরিবহন নয় সাথে সাথে অন্য যানবাহনেও ঘটছে দুর্ঘটনা। মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় উপজেলায় টেপড়া বাসস্ট্যান্ডের নতুনযে আইল্যান্ড হয়েছে সেই স্থানে গত দুই দিনে ৫ টা দুর্ঘটনা ঘটেছে। এই তিন দিনে মোট ৭টা দুর্ঘটনা ঘটেছে একই যায়গায়। এ যেন মরন ফাঁদ তৈরি করে রেখেছে দেখার যেন কেউ নেই, সড়ক দুর্ঘটনার হাত থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য এই রোড ডিভাইডার দিয়েছে সড়ক বিভাগ কিন্তু এখানে অর্ধেক কাজ করে চলে যাওয়ায় তৈরি হয়েছে মরণ ফাঁদ। সর্বক্ষণ আতঙ্কে থাকেন স্থানীয় দোকানদার ও পথচারীরা। তাই স্থানীয় জনতারা বলছে আমরা জানতে চাই আর কত মায়ের বুক খালি হলে তাদের বোধ শক্তি ফিরে আসবে। প্রশাসন থেকে কোন উদ্বেগ গ্রহন করতে দেখা যাচ্ছে না তাই এলাকাতে দেশের মানুষ মনে ভিতি ক্ষোভের জন্ম নিচ্ছে প্রতিনিয়ত ।

ফেসবুকে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ধরনের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Agrajatra 24
Design & Develop BY Coder Boss
themesba-lates1749691102