1. admin@agrajatra24.com : Agrajatra 24 :
  2. Ashrafalifaruki030@gmail.com : আশরাফ আলী ফারুকী : আশরাফ আলী ফারুকী
  3. editor@agrajatra.com : News :
নলছিটিতে শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা ভাতা বঞ্ছিত, অনত্র বিয়ে বসার পরেও ভাতা খাচ্ছেন স্ত্রী - Agrajatra24.com
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৬:২১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রাজশাহীতে সাংবাদিকের ওপর হামলাকারীদের গ্রেপ্তার সহ শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ দোকানদার কৃষি কর্মকর্তা শফিকের হামলার শিকার অগ্রযাত্রার সাংবাদিক(ভিডিও সহ) র‌্যাবের-১৩ অভিযানে ৫০৩ পিস ইয়াবাসহ ২,মাদক চোরাকারবারি গ্রেফতার বাগমারায় উপজেলা চেয়ারম্যানের দায়িত্বে আসাদুজ্জামান আসাদ দোয়ারাবাজারে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পরিদর্শন সহ বিভিন্ন কর্মসূচিতে বিভাগীয় কমিশনার ডামুড্যায় পূজামন্ডপের প্রস্তুতি পরিদর্শনে ইউএনও হাছিবা খান গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে বিশ্ব নদী দিবস উদযাপন আজ সনাতন ধর্মাবলম্বিদের পবিত্র মহালয়া। এ উপলক্ষে নিচের লেখাটি পাইকগাছায় আইনজীবী মোহতাছিম বিল্লাহর বাসা থেকে বাল্যবিবাহ প্রস্তুতকালে ১১ বছরের কন্যাসহ আটক ০৭ পাইকগাছা লতা ইউনিয়নে সুপেয় পানি সরবরাহের প্রকল্প উদ্ধোধন। সুন্দরগঞ্জে শেষ মূহুর্তে রং তুলির আঁচড়ে ফুটিয়ে উঠছে প্রতিমা রাঙ্গাবালী’তে ১৩ বছর পর যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত খুলনা জেলা প‌রিষদ নির্বাচন উপল‌ক্ষে পাইকগাছা আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভা কয়রায় ম‌হিলার গা‌য়ে এ‌সিড নি‌ক্ষে‌পের অ‌ভি‌যোগ ছাতকে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ১: গ্রেফতার ৩ ওসি তদন্তের শত চেস্টায়ও বাঁচানো গেলোনা আহত কাওসারকে ডামুড্যায় আশ্রয়ণ প্রকল্পের পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যাল‌য়ের প‌রিচালক গোসাইরহাট সার্কেল অফিস ও ডামুড্যা থানা পরিদর্শনে শরীয়তপুরের এসপি মোঃ সাইফুল হক সুনামগঞ্জ দোয়ারাবাজার থানার আয়োজনে সর্বসাধারণের মতামত ও সমস্যা নিয়ে পুলিশের সঙ্গে ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠিত হয়েছে, রাজশাহী জেলা নাগরিক সমাজ সংগঠনের ত্রৈমাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে

নলছিটিতে শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা ভাতা বঞ্ছিত, অনত্র বিয়ে বসার পরেও ভাতা খাচ্ছেন স্ত্রী

  • সংবাদটি লিখা হয়েছে : রবিবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
  • ১৭৪ জন পড়েছে

স্টাফ রিপোর্টারঃ
ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার বিন্দুঘোষ গ্রামের মুক্তিযুদ্ধে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা করম আলী আকনের দুই সন্তান জামাল ও কামালকে ভাতা বঞ্ছিত করে অন্যত্র বিয়ে হওয়ার পরও প্রথম স্বামীর মুক্তিযোদ্ধা ভাতা তুলে খাচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পিতার ভাতা তার সন্তানরা পেতে ওই মুক্তিযোদ্ধার ছেলে জামাল আকন মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের পরিচালক বরাবরে তিনি এ আবেদন করেছেন। আবেদনে জামাল আকন দাবি করেন, করম আলী আকন বীরত্বের সাথে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। দুই সন্তান জামাল ও কামালসহ স্ত্রী আম্বিয়া খাতুনকে রেখে ১৯৭১ সালের ২৪ জুন রণাঙ্গনে শহীদ হন। তার শহীদ গেজেট নং-১৩১, লাল মুক্তিবার্ত নং- ০৬০২০২০৩০৬। শহীদ মুক্তিযোদ্ধা করম আলীর স্ত্রী ও দুই ছেলে ছাড়া আর কোন উত্তরসূরী নেই। কিন্তু স্ত্রী ৫ ও ৭ বছর বয়সী দু’শিশু সন্তান রেখে মুক্তিযোদ্ধা স্বামীর মৃত্যুর কয়েক বছর পরেই একই গ্রামের হোসেন আলী হাওলাদারের ছেলে আঃ রাজ্জাক হাওলাদারের সাথে শরীয়াহ মোতাবেক বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন আম্বিয়া খাতুন। আম্বিয়া খাতুনের দ্বিতীয় বিবাহে আঃ রাজ্জাকের ঔরশে সালাম হাওলাদারের জন্ম হয়। আম্বিয়া খাতুন শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সংসার ও সন্তান ফেলে রেখে দ্বিতীয় স্বামীর সংসার করলেও দুই সন্তানকে বঞ্ছিত করে প্রথম স্বামী শহীদ মুক্তিযোদ্ধা করম আলীর ভাতা তুলে খাচ্ছেন আম্বিয়া খাতুন। শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের সকল সুযোগ-সুবিধা বঞ্চিত হয়ে তা পেতে আবেদন জানান জামাল আকন। জামাল আকন আরো জানান, আম্বিয়া খাতুনের দ্বিতীয় বিবাহের স্বামী আঃ রাজ্জাক শিউলি নামে আরেকজনকে বিয়ে করেন। আম্বিয়া ও শিউলীর মধ্যে বনিবনা না হওয়ায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা করম আলীর ঘরে এসে আঃ সালামকে নিয়ে বসবাস করেন। এতে তাঁদের মধ্যে ভ্রাতৃত্ব বন্ধনের সৃষ্টি হয়। এ সুযোগে সম্পত্তি আত্মসাতের পায়তারা করে। আঃ সালাম শহীদ মুক্তিযোদ্ধা করম আলীর কোন সম্পত্তি ভোগ দখলের অধিকার রাখে না মর্মে নলছিটির সহকারী জজ আদালতে মামলা (নং-১১/২১) দায়ের করা হয়। যা আদালতে মামলার কার্যক্রম চলমান রয়েছে। মামলা ও আবেদন করার পর ক্ষিপ্ত হয় নানা ভাবে হুমকি ও হয়রানি করেছে বলেও অভিযোগ করেন জামাল আকন। এলাকাবাসী জানায়, আম্বিয়া প্রথম মুক্তিযোদ্ধা স্বামী শহীদ হওয়ার পর আঃ রাজ্জাক হাওলাদারের সাথে শরীয়াহ মোতাবেক দ্বিতীয় বিয়েতে বসেন। এলাকার অনেক লোক ওই বিয়েতে অংশ নেন। কিন্তু বিয়ের বসার পরেও শহীদ মুক্তিযোদ্ধার দুই সন্তানকে বঞ্চিত করে ভাতা ও সকল সুযোগ সুবিধা নিচ্ছেন। অভিযোগের বিষয়ে আম্বিয়া খাতুনের মতামত পাওয়া যায়নি। এদিকে আবেদনের প্রেক্ষিতে মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট থেকে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক বরাবরে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের অনুরোধ জানানো হয়। তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী তার কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সিফাত বিন সাদিককে দায়িত্ব প্রদান করেন। জানতে চাইলে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সিফাত বিন সাদিক জানান, বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে, তদন্ত শেষ করে প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

ফেসবুকে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ধরনের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Agrajatra 24
Design & Develop BY Coder Boss