Agrajatra24.com
Agrajatra 24
UX/UI Designer at - Adobe

অনুসন্ধান মূলক জাতীয় সাপ্তাহিক পত্রিকা অগ্রযাত্রা

বসুন্ধরা শপিং মলে বিকল জিবাণু নাশক টানেলে ক্রেতাদের ঠাসাঠাসি!

লেখক:
প্রকাশ: ১ বছর আগে

Agrajatra24.com
Agrajatra 24
UX/UI Designer at - Adobe

অনুসন্ধান মূলক জাতীয় সাপ্তাহিক পত্রিকা অগ্রযাত্রা

 

রিপোর্টঃ আসমা উল হুসনা –

বাড়ছে করোনা, বাড়ছে ফাঁকি- বাড়ছে জনগণের সাথে প্রতারণার নয়া নয়া কৌশল ।
নতুন করে করোনা সংক্রমণ যখন উরধমুখী এরই মাঝে, নামী শপিংমল পান্থপথের বসুন্ধরা সিটি শপিং মলের অকার্যকর” disinfection Chamber” এ মধ্যে দিয়ে প্রতিদিন একসাথেই ঢুকছেন শত শত মানুষ – এমন কি মেশিনটা যে নষ্ট তাও জানেন না মলে আসা ক্রেতা সাধারণ। অথচ এই জীবাণু দুষ্ট পথেই ঢুকছেন তারা। এমনই একটি চিত্র দেখা গেছে শুক্রবার ১২ মার্চ ২০২১ সন্ধ্যা ৭টার সময় দেশের নামী শপিংমল পান্থপথের বসুন্ধরা সিটি শপিং মলে ঢোকার মুখে।

নামী দামী শপিংমল পান্থপথের বসুন্ধরা মলে, আধামাইল ধরে শুধু গাড়ি ঢোকার লাইন, যা ম্যানেজ করতে প্রতিনিয়ত হিমশিম খায় ট্রাফিক পুলিশ। কিন্তু এই লাইন ছাড়িয়ে গেছে মুল শপিংমলের ঢাকার লাইন। কারণ মলে ঢোকার মুল ফটকে বসানো আছে Covid -19 Disinfection Chamber বাংলায় করোনা জীবাণু মুক্তিকরণ মেশিন – হলেও আদতে এটি ” করোনা যুক্ত করণ” – Chamber কিনা তা নিশ্চিত নয়। কারণ এক সপ্তাহ ( ৭ দিন) ধরে অকার্যকর
এই মেশিনবুথের ভেতর দিয়েই গাদাগাদি করে প্রবেশ করছেন হাজারো মানুষ, এমনকি স্বাস্থ্য বিধি মানার বদলে স্বাস্থ্যবিধি মানাই যেন বালাই ষাট। শুক্রবার সন্ধ্যায় মলে ঢুকতে গিয়ে বসুন্ধরার আইডি ফিতা ঝোলানো নিরাপত্তা (সিকিউরিটি) বাহিনী নষ্ট এই চেম্বার দিয়েই ভেতরে প্রবেশ করতে বলে।

হিসেব মত Disinfection Chamber গুলো দিয়ে এক
জন করে প্রবেশ করার কথা থাকলেও গণহারেই ঢোকানো হচ্ছে ক্রেতাদের এবং তারা একসাথেই অনেকজন ঢুকছেন এবং অন্য পাশ দিয়ে বের হয়ে যাচ্ছেন। বিষয়টি সন্দেহজনক হলে কাছে গিয়ে দেখা যায় ওই chamber এর ভেতরে কোনো জীবাণু নাশক কিছুই বের হচ্ছেনা – এ বিষয় নিরাপত্তায় নিয়োজিতদের সাথে কথা বলে জানা যায় এটি নষ্ট। তাহলে এই নষ্ট বুথের মধ্যে দিয়ে কেন ঢোকানো হচ্ছে ক্রেতাদের?? এমন প্রশ্নে তারা বসুন্ধরার এডমিন অফিসে যোগাযোগ করতে বলেন।

এবার বসুন্ধরার প্রথম তলায় অবস্থিত অফিসের যোগাযোগ করলে, টেলিফোনে অগ্রযাত্রার সাথে বসুন্ধরার জি এম এডমিন পরিচয়ে কথা বলেন জনাব হাবিবুর রহমান। নষ্ট chamber দিয়ে সারে সারে ক্রেতা সাধারণ প্রবেশ করানোর বিষয়ে জানতে চাইলে প্রথমে তিনি বলেন, আসলে এটা reshuffling চলছে, কিন্তু জীবাণু মুক্তকরণ মেশিন টি আসলে নষ্ট – এ বিষয়টা তুলে ধরলে, তিনি পরে বলেন আসলে এটি সপ্তাহ খানেক ধরে কাজ করছেনা! তাহলে সপ্তাহ ভর নষ্ট একটি জীবাণু দুষ্ট পথে এ পযন্ত কতজন
ক্রেতা প্রবেশ করেছেন এবং প্রবেশের ফলে তাদের সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়ছে কিনা? – অগ্রযাত্রার এমন প্রশ্নে তিনি কিছুক্ষণ নিশ্চুপ থেকে বলেন তারা মেশিন টি ঠিক করার দ্রুত ব্যবস্থা নেবেন!