মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০১:০৮ পূর্বাহ্ন

বাবার খুনের দায় স্বীকার ;স্ত্রী,ছেলে,মেয়ে ও মেয়ে জামাই আটক

Coder Boss
  • সংবাদটি লিখা হয়েছে : বৃহস্পতিবার, ১১ মার্চ, ২০২১
  • ৬৭ জন পড়েছে

 

নওগাঁর পোরশায় এক হতভাগ্য পিতাকে খুনের দায় স্বীকার করায় স্ত্রী, ছেলে, মেয়ে ও জামাই সহ চার জনকে আটক করেছে থানা পুলিশ। খুন হওয়া ব্যক্তি হলেন উপজেলার গঙ্গুরিয়া ইউনিয়নের বালিয়াচান্দা গ্রামের মৃতু মালেকের ছেলে আবদুল খালেক। আটককৃতা হলেন খালেকের স্ত্রী ফাইমা(৪৫), ছেলে খাইরুল ইসলাম(২৮), মেয়ে নাজমা খাতুন (২৫) ও জামাই ঘাটনগর শাহুপাড়া গ্রামের মৃতু হোসেন মোল্লার ছেলে মোদাচ্ছের(৩০)। সূত্রমতে, পারিবারিক কলহের জের ধরে গত ৪/২/২১ইং রাতে নিজ বাড়িতে খালেকের ছেলে খাইরুল ও মেয়ে নাজমা খাতুন তার বাবার গলায় মাফলার পেঁচিয়ে হত্যা করে। হত্যার পরে লাশ গুম করার জন্য খাইরুল মোটরসাইকেল যোগে তার কর্মস্থল চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরের শ্রীরামপুর হাফেজিয়া মাদরাসার পিছনে ড্রেনের মধ্যে ফেলে দিয়ে লাশ গুম করে। এর কয়েকদিন পরে এলাকার লোকজন লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে বেওয়ারীশ হিসাবে স্থানীয় কবর স্থানে দাফন করেন। এ বিষয়ে গত ২৭/২/২১ইং তারিখে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানায় একটি হত্যা মামলা হয়। নিজেদের বাঁচানোর জন্য হত্যার বিষয়টি গোপন রাখলেও পরে ভিকটিমের একমাত্র ভাই জাকির আলমের চাপে ভিকটিমের ছেলে গত ৮/৩/২১ইং তারিখ পোরশা থানায় একটি জিডি করে। ফলে জিডির সূত্রধরে পোরশা থানা পুলিশ হত্যার আসল রহস্য উৎঘাটন ও হত্যাকারীদের চিহ্ণিত করতে সক্ষম হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে পোরশা থানা পুলিশ ওই চারজনকে বালিয়াচান্দা নিজ বাড়ি থেকে আটক করেন এবং জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার কথা স্বীকার করেন। পোরশা থানা কর্মকর্তা ইনচার্জ শফিউল আজম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন এবং এ ব্যাপারে মঙ্গলবার দিবাগত রাতেই থানায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে বলে জানান। অপরদিকে আটককৃতদের গ্রেফতার দেখিয়ে বুধবার জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান।

ফেসবুকে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ধরনের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Agrajatra 24
Design & Develop BY Coder Boss
themesba-lates1749691102