1. admin@agrajatra24.com : Agrajatra 24 :
  2. Ashrafalifaruki030@gmail.com : আশরাফ আলী ফারুকী : আশরাফ আলী ফারুকী
  3. editor@agrajatra.com : News :
মা মনি ওভারসীজের মালিক শেখ ইকবালের ইন্ধনে সৌদি আরবে নারীর ওপর চলছে ভয়ানক নির্যাতন - Agrajatra24.com
বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:১৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ফরিদপুর ২ আসনের শাহাদাত আকবর লাভলু চৌধুরী এমপিকে সংবর্ধনা জানাতে সরকারি স্কুলের পরীক্ষা স্থগিত বগুড়া জেলা পুলিশের উপ-পরিদর্শক রোজিনা বাংলাদেশ পুলিশ উইমেন নেটওয়ার্ক কর্তৃক পুরস্কৃত রাজশাহীর পুঠিয়ায় নাশকতার মামলায় বিএনপির ২ নেতা আটক পাইকগাছায় বাল্যবিবাহ নিরোধ কমিটির সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত মাসিক সভা অনুষ্ঠিত ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ ডিসেম্বর থেকে বাঁশখালীতে দিনব্যাপী “ডিজিট্যাল উদ্ভাবনী মেলা”র উদ্বোধন করলেন সাংসদ মোস্তাফিজ ওজনে কম দেওয়ায় ডিলারকে জরিমানা দোয়ারাবাজারে বিদেশী মদের চালানসহ মদ ব্যবসায়ী আটক, পাইকগাছায় পাউবোর জায়গায় দোকান ঘর নির্মাণের অভিযোগ রায়পু‌রে উপ‌জেলা প্রশাস‌নের মোবাইল কোর্ট প‌রিচালনায় জ‌রিমানা আদায় ৯৫টি চোরাই মোবাইলসহ আটক ৭, গোয়েন্দা উত্তর বিভাগ পাইকগাছায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে সার-বীজ সহ বিভিন্ন উপকরণ বিতরণ পাইকগাছা উপজেলা আইন শৃংখলা ও মাসিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত পাইকগাছায় পল্লীসমাজের মিলন মেলা অনুষ্ঠিত নারায়ণগঞ্জে বিএনপি নেতাদের বিরুদ্ধে পুলিশ নিজেই বাদী হয়ে মামলা করেন নাটোরের নলডাঙ্গায় ড্রামে পাওয়া গেলো বাগমারার মোজাহারের রক্তাক্ত মৃতদেহ সুন্দরগঞ্জে বিজয় দিবসে কর্মসূচী গ্রহণের সভা রংপুর সিটি নির্বাচনে বিএনপির অংশ না নেওয়ার ঘোষণা রাজাপুরে নিজ বাসা থেকে স্কুল ছাত্রীর লাশ উদ্ধার

মা মনি ওভারসীজের মালিক শেখ ইকবালের ইন্ধনে সৌদি আরবে নারীর ওপর চলছে ভয়ানক নির্যাতন

  • সংবাদটি লিখা হয়েছে : বুধবার, ২ নভেম্বর, ২০২২
  • ৪৭ জন পড়েছে

* সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাস কর্মকর্তার চরম অবহেলা ও সেচ্ছাচারিতা।

* প্রমাণ থাকার পরও নিস্ক্রিয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

* শঙ্কায় দিন কাটাচ্ছে ভুক্তভোগীর শিশু মেয়ে ও পরিবার।

রিপোর্টঃ মেহেদী হাসান ও মোহাম্মদ মুহাজির রহমান মিঠু –

সৌদি আরবে নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়েও দেশে ফিরতে পারছেন না মুক্তা নামের একজন নারী৷ মা মনি রিক্রুটিং এজেন্সির মালিক শেখ ইকবালের ইন্ধনে সৌদি আরবে ভয়ংকর নির্যাতন চালানো হচ্ছে অসহায় ঐ নারীর ওপর। নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে দেশে ফিরতে চাওয়ায় শেখ ইকবালের নির্দেশে ঐ নারীর ওপর নির্যাতনের মাত্রা আরো বাড়িয়ে দিয়েছে সৌদি আরবে থাকা তার সহযোগীরা৷ বিষয়টি অগ্রযাত্রা’র পক্ষ থেকে সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাসের লেবার কাউন্সিলর মোহাম্মদ রেজা ই রাব্বিকে জানানো হলেও তিনি ঐ নারীকে দেশে ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা না করে উল্টো শেখ ইকবাল কে সহযোগিতা করছেন বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে। এমতাবস্থায় উদ্বেগ উৎকন্ঠায় দিন কাটছে সৌদি আরবে নির্যাতনের শিকার ঐ নারীর পরিবারের। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী ঐ নারীর স্বামী সুরুজ আলী থানায় ও বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েও ফল পাননি৷ বরং তাকে নানানভাবে হুমকি দিচ্ছে ঐ নারীকে পাচারের মূলহোতা শেখ ইকবাল ও তার সহযোগীরা। এমনটাই অভিযোগ সুরুজ আলীর। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে – প্রায় ৭ মাস আগে কিশোরগঞ্জের কটিয়াদি এলাকার গৃহবধূ নারী মুক্তা আক্তারকে ভালো বেতন ও সুযোগ সুবিধার প্রলোভন দেখিয়ে শেখ ইকবালের মা মনি ওভারসীজ নামের একটি রিক্রুটিং এজেন্সি সৌদি আরব পাঠায়। কিশোরগঞ্জের স্থানীয় আদম পাচার দালাল আলম ও ঢাকার দালাল সর্দার হাবিবের মাধ্যমে তাকে ঢাকা এনে সৌদি আরবের এক নাগরিকের কাছে ৮ লক্ষ টাকায় বিক্রি করে দেয় শেখ ইকবাল। কিন্ত সৌদিতে যাবার ৩ মাসের মাথায় মুক্তার ওপর জোরপূর্বক নানান ধরণের নির্যাতন চালাতে থাকে সৌদি মালিক। সৌদি মালিক ঐ নারীকে দুবাই বিক্রি করে দিতে চান। মুক্তা আক্তারকে তার সৌদি মালিক বলছেন তাকে সে ৮ লক্ষ টাকায় কিনে নিয়েছে। এখন তাকে যা খুশি তাই করতে পারে৷ তাকে আর কখনো বাংলাদেশে পরিবারের কাছে পাঠানো হবে না বলেও সাফ জানিয়ে দেয় সেই সৌদি মালিক৷ ওদিকে দুবাই যেতে রাজী না হওয়ায় মুক্তার ওপর নেমে আসে ভয়ানক সব নির্যাতনের খড়গ। তাকে মারধরের জন্য রীতিমতো লোক ভাড়া করে আনেন সেই সৌদি নাগরিক। নিয়মিত বেধরক মারধরের পাশাপাশি তাকে খাবার না দিয়ে দিনের পর দিন ফেলে রাখা হয় একটি জানালাবিহীন কক্ষে। মুক্তা ভিডিও কলে পুরো বিষয়টি জানিয়েছেন তার স্বামীকে। সে তাকে দ্রুত উদ্ধার করে নিতেও আকুতি জানায়। ওদিকে এ ব্যাপারে মুক্তার স্বামী সুরুজ আলী বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে লিখিত অভিযোগ দিলে সম্প্রতি একটি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী অগ্রযাত্রা’র দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে মুক্তাকে পাচার ও নির্যাতনের মূলহোতা মা মনি ওভারসীজ এর মালিক শেখ ইকবাল ও দালাল সর্দার হাবিব কে আটক করে নিয়ে যায়। একই সময় অগ্রযাত্রা’র পক্ষ থেকেও মানবিক কারণে সৌদি আরবে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের লেবার কাউন্সিলর রেজা ই রাব্বি কেও সবিস্তারে প্রমাণসহ মুক্তাকে নির্যাতনের বিষয়টি জানানো হলে তিনি মুক্তাকে উদ্ধার করে এনে ৪-৫ দিনের মধ্যে দেশে ফেরত পাঠানোর আশ্বাস দেন। মূলত সৌদি আরবের বাংলাদেশ দূতাবাসের লেবার কাউন্সিলরের কাজই হলো প্রবাসীর সমস্যার দিকগুলো দেখা ও দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া। ভুক্তভোগী মগক্তার স্বামী সুরুজ আলীর দাবি- আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সম্মুখে মুক্তার স্বামী সুরুজ আলী ইকবালকে তার স্ত্রীর নির্যাতিত হবার বিষয়টি প্রমাণসহ জানালেও বার বার জোরপূর্বক তা অস্বীকার করতে থাকে শেখ ইকবাল। পরবর্তীতে রহস্যজনক ভাবে শেখ ইকবালকে ছেড়ে দেয় ঐ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এরপর থেকে আরো ভয়ংকর হয়ে ওঠে শেখ ইকবাল। সে মুক্তাকে সৌদি আরবে তার এজেন্টদের অফিসে নিয়ে আসার নির্দেশনা দেয়। এবং সেখানে এনে মুক্তাকে বেধরক মারধর করান এবং সে দৃশ্য ভিডিও কলে উপভোগ করেন শেখ ইকবাল৷ এরপর তিনি ভিডিও কলে হাসতে হাসতে মুক্তাকে বলেন- বাংলাদেশে গেলে তোমার দেহ ঠিকই যাবে, সেই দেহে প্রাণ থাকবে না। অর্থাৎ তোমার লাশ যাবে। এসময় ইকবালের নির্দেশে ব্যাপক মারধরের পর খুনের হুমকি দিয়ে জোরপূর্বক মুক্তাকে একটি ভিডিও ক্যামেরার সামনে বলানো হয়- সে ভালো আছে, নিয়মিত বেতন পাচ্ছে, তাকে কোন নির্যাতন করা হচ্ছে না। এই ভিডিও ধারণ করে মুক্তাকে আবারো সেই আগের নির্যাতনকারী সৌদি মালিকের বাসায় দিয়ে আসা হয়। মুক্তাকে বলে দেয়া হয় যদি ঐ মালিকের কথা অমান্য করিস তবে এরপর অফিসে এনে তাকে জবাই করে মেরে ফেলা হবে। ওদিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিস্ক্রিয়তার পর সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাসের লেবার কাউন্সিলর রেজা ই রাব্বিও এ বিষয়ে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন। মুক্তাকে ৪-৫ দিনে দেশে ফেরানোর কথা থাকলেও তাকে দেশে না ফিরিয়ে উল্টো তিনি ইকবালকে নানান পরামর্শ দিয়েছেন বলে জানা গেছে। এছাড়া রেজা ই রাব্বি পাচার ও নির্যাতনের শিকার মুক্তাকে ফেরাতে অগ্রযাত্রা’র সম্পাদক মেহেদী হাসানের বিষয়ে জানিয়ে দেন। শেখ ইকবাল এরপর অগ্রযাত্রা’র সম্পাদক মেহেদী হাসান এর ঠিকানা জানতে চেয়ে এবং মেহেদী হাসান কে শেষ করে ফেলবেন বলে মুক্তার স্বামী সুরুজ আলী কে জানান। পাশাপাশি মুক্তার স্বামীকে নানানভাবে হুমকি দিয়ে বলেন – সাহস থাকলে আমার অফিসে আয়। সৌদি আরবে মুক্তার সাথে যা যা ঘটেছে তার বর্ননা মুক্তা নিজেই সম্প্রতি আরো একটি ভিডিও কলে তার স্বামীকে জানিয়েছে। আবারো সে তাকে উদ্ধারের আকুতি জানিয়েছে। সে আরো জানিয়েছে নিয়মিতই তাকে নির্যাতন করা হচ্ছে। খাবার না দিয়ে আটকে রাখা হচ্ছে বদ্ধ ঘরে। শেখ ইকবালের বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে অভিযোগ করায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে নিয়মিত আমাকে আরো বপশী মারধর করার নির্দেশনা দেয় সৌদি মালিককে। ওদিকে শেখ ইকবালের এমন ভয়ংকর সব কর্মকাণ্ডে চরমভাবে অসহায় হয়ে পড়েছেন ভুক্তভোগী মুক্তার পরিবার। তার ৩ বছর বয়সী একমাত্র মেয়েটি মায়ের জন্য অস্থির হয়ে উঠেছে। ভেঙ্গে পড়েছেন মুক্তার বাবা মা ও বড় বোন। মুক্তাকে দেশে আনার জন্য পাগলের মতন ছুটে বেড়াচ্ছেন তার দরিদ্র স্বামী সুরুজ আলী। ওদিকে মুক্তাকে পাচারের মূল হোতা শেখ ইকবাল তাকে হুমকি দিয়ে তার অফিসে যেতে বললেও দালাল আলম সুরুজ আলীকে জানিয়েছে সে অফিসে গেলেই তার সাথে ভয়ংকর কিছু করে বসতে পারে ক্ষুব্ধ নারী পাচারকারী শেখ ইকবাল। ওদিকে মুক্তাকে কেনো নির্যাতন করা হচ্ছে এমন প্রশ্নের জবাবে অভিযুক্ত নারী পাচারকারী শেখ ইকবাল অগ্রযাত্রাকে বলেন- সবই ঐ নারী ও তার পরিবারের নাটক। সে খুবই আরামে ও আনন্দে আছে৷ তাকে কোন নির্যাতন করা হয়নি। হচ্ছে না। এসময় ইকবালকে জিজ্ঞেস করা হয় ঐ নারী ফিরতে চাইছেন তার প্রমাণ আছে সে ফিরতে চাইলেও কেনো তাকে ফেরানো হচ্ছে না? এর জবাবে শেখ ইকবাল বলেন- তাকে দেশে নিয়ে আসা হবে শীঘ্রই।
কিন্ত এরপর অন্তত ২ সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও মুক্তাকে ফিরিয়ে আনাতো হয় ই নি বরং তার ওপর নির্যাতনের মাত্রা আরো বেড়েছে বলে প্রমাণ পেয়েছে অগ্রযাত্রা। এদিকে শেখ ইকবালের লাগাতার হুমকি, প্রশাসনের চরম অবহেলা, ও সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাসের সেচ্ছাচারিতা দেখে ভীত ও অসহায় হয়ে পড়েছেন ভুক্তভোগী মুক্তার পরিবার। তারা শঙ্কায় দিন কাটাচ্ছেন। মায়ের প্রতীক্ষায় দিন গুনছে মুক্তার ছোট্ট মেয়ে। কেও জানে না তার প্রতীক্ষার আদৌ অবসান হবে কিনা। বিষয়টি নিয়ে মুক্তার পরিবারের পাশাপাশি লড়ে যাচ্ছে অগ্রযাত্রা’র অনুসন্ধানী সাংবাদিকরাও।

ফেসবুকে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ধরনের আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 Agrajatra 24
Design & Develop BY Coder Boss